October 20, 2019

ইতালি যাওয়ার পথে বিশ্বনাথের দুই যুবক নিখোঁজ

IMG_20190513_233751বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে নিখোঁজ রয়েছেন সিলেটের বিশ্বনাথের দিলাল মিয়া (৩৪) ও রেদওয়ানুল ইসলাম খোকন (২৬) নামে দুই যুবক। তারা প্রায় ৫ মাস পূর্বে লিবিয়া গিয়েছিলেন। সেখান থেকে গত ১১ মে নৌকা যোগে ইতালি যাওয়ার কথা ছিল। নৌকায় উঠার ১০ মিনিট পূর্বে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে দিলাল মিয়া তার ভাইকে জানিয়েছিলে তিনি ইতালির উদ্দেশ্যে যাত্রা করছেন। একই নৌকার যাত্রী রেদওয়ানুল ইসলাম খোকনও নৌকায় উঠার পূর্বে তার ভাই ভয়েস ম্যানেজ এর মাধ্যমে একই কথা জানিয়েছিলেন। কিন্ত এর পর থেকে এই দুই যুবকের পরিবারের পক্ষ থেকে তাদের সাথে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না বলে পরিবারের সদস্যরা এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন।

নিখোঁজ দিলাল মিয়া বিশ্বনাথ উপজেলার অলংকারী ইউনিয়নের শিমুলতলা গ্রামের ইর্শাদ আলী মাস্টারের পুত্র ও রেদওয়ানুল ইসলাম খোকন একই উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের নওধার মাঝপাড়া গ্রামের ইলিয়াস আলীর পুত্র।
এদিকে- গত শনিবার লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে তিউনিসিয়ার উপকূলবর্তী ভূমধ্যসাগরে অভিবাসীবাহী নৌকা ডুবিতে নিহত ২৭ বাংলাদেশির মধ্যে বিশ্বনাথ উপজেলার খোকন, রুবেল ও বেলাল নামে ৩ যুবক ছিলেন বলে একটি জাতীয় পত্রিকায় তাদের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া ওই নৌকা ডুবি থেকে ফিরে আসা সিলেটের যুবক বেলাল সাথে নিখোঁজ রেদওয়ানুল ইসলাম খোকনের পরিবারের সদস্যরা যোগাযোগ করলে বেলাল জানিয়েছেন তার সঙ্গে একই নৌকায় যাত্রী ছিলেন খোকনও। অপর দিকে, নিখোঁজ দিলাল মিয়ার ভাই শানুর মিয়া জানিয়েছেন রেদওয়ানুল ইসলাম খোকনের সঙ্গে একই নৌকায় যাত্রী ছিলেন দিলাল মিয়া।
ভূমধ্যসাগরে অভিবাসীবাহী নৌকা ডুবিতে নিহত ২৭ বাংলাদেশির পরিচয় অনেকটাই নিশ্চিত হয়েছেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি। তাদের মধ্যে বিশ্বনাথের তিন যুবকের নাম উল্লেখ করায় ধারণা করা হচ্ছে নিখোঁজ দিলাল মিয়া ও রেদওয়ানুল ইসলাম খোকন ওই নৌকার যাত্রী ছিলেন।
এদিকে- দিলাল মিয়া ও রেদওয়ানুল ইসলাম খোকনের পরিবার সহ আত্মীয়-স্বজন রয়েছে দুঃচিন্তায়। তাদের পরিবারের আহাজারীতে বাতাস ভারী হয়ে উঠছে। পরিবারের সদস্যদের সান্তনা দেওয়ার ভাষা হারিয়ে ফেলেছেন পাড়া-প্রতিবেশীরা।

Related posts