October 20, 2019

‘৮০’র দশকে ছোট কমিউনিটি ও কম শিক্ষিত লোক নিয়ে বাংলার প্রসার ঘটেছে বেশী’

( ছবিঃ শাহিন খান ও রেজাউল করিম মৃধা ) 

জাকিয়া সুলতানা, লন্ডন থেকেঃ টাওয়ার হ্যামলেটস প্যারেন্ট সেন্টারের ‘ক্যাম্পেইন ফর কমিউনিটি ল্যাঙ্গুয়েজসেস ইন মেইনস্ট্রিম স্কুলস’- এর উদ্যোগে গত ৭ই এপ্রিল পূর্ব লন্ডনের ব্রাডি আর্ট সেন্টারে ‘আমাদের ছেলেমেয়েদের শিক্ষার অগ্রগতিতে বাংলা ভাষার ভুমিকা’ শীর্ষক এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশিষ্ট মিডিয়া ও সাংস্কৃতিক কর্মী নাজমুল হোসেনের পরিচালনায় উক্ত সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন টাওয়ার হ্যামলেটসের প্রাক্তন সিভিক মেয়র মোহাম্মদ গোলাম মোরতুজা। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেথনাল্গ্রীন ও বো এর লেবার দলীয় এম পি, রুশনারা আলী আর বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা ও বাংলাদেশের সাবেক সাংসদ সুবিদ আলী টিপু এবং এনটিভির ইউরোপের সিইও সাবরিনা হোসেন । আর উক্ত সেমিনারের মুল বক্তা ছিলেন গবেষক ও টাওয়ার হ্যামলেটস পেরেন্ট সেন্টারের পরিচালক ডঃ এম এ হান্নান।

অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্যে মোহাম্মদ গোলাম মোরতুজা বলেন, আশির দশকে আমাদের কমিউনিটি এখনকার চেয়ে ছোট ছিল ও শিক্ষিত লোক কম ছিল। কিন্তু তখনই কাজ হয়েছে বেশী। কমিউনিটি অনেক বড় হয়েছে ও শিক্ষিত লোক এখন বেড়েছে, কিন্তু কাজের কাজ আগের তুলনায় কিছুই হচ্ছেনা। এখন আমাদের কমিউনিটি অনুষ্ঠান উদযাপন নিয়ে ব্যস্ত থাকে বেশী ।

সেমিনারের প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের প্রাক্তন লিডার হেলাল আব্বাস, লন্ডন-বাংলা প্রেস ক্লাবের প্রেসিডেন্ট এমদাদুল হক চৌধুরী, শিক্ষাবিদ এ কে এম ইয়াহিয়া, শিক্ষক তাসাউর আলী, শিক্ষক ও মিডিয়া কর্মী সৈয়দ আফসার উদ্দিন, কাউন্সিলর সাদ চৌধুরী, কাউন্সিলর তারেক খান, কাউন্সিলর শাহ সুহেল আমিন, কমিউনিটি সংগঠক সিরাজুল হক সিরাজ ও সাংবাদিক সৈয়দ জহুরুল হক এবং কমিউনিটি সংগঠক আঙ্গুর আলী।

কমিউনিটি, শিক্ষক ও অভিভাবকদের পক্ষ থেকে বক্তব্য তুলে ধরেন, কমিউনিটি সংগঠক ও সাংবাদিক আবু তাহের চৌধুরী, কাউন্সিলর আব্দুল মুকিত চুন্নু, কমিউনিটি সংগঠক মাওলানা রফিক আহমেদ ও মোহাম্মদ সানু মিয়া, কবি  ও শিক্ষক মুজিবুল হক মনি,স্কুল গভর্নর ঝর্না হাসান চৌধুরী এবং মহিলা সংগঠক সায়িদা নাসিমা।

মুল বক্তাসহ অন্যান্য বক্তাগন মাতৃভাষা বাংলা শিক্ষার উপর গুরুত্ব আরোপ করে এর প্রসারে বাঁধাগুলো চিহ্নিত করে করণীয় নিয়ে বিভিন্ন আলোচনা তুলে ধরেন। তাঁরা নিজস্ব মাতৃভাষা বাংলার পঠন ও পাঠন যে গুরুত্বপূর্ণ তা অনুধাবন করতে অভিভাবকদের অনুরোধ জানিয়ে তাঁদের সাহায্য কামনা করেন।  সচেতন মহল যাতে স্কুলের প্রধান শিক্ষককে বাংলা চালু রাখার জন্য চাপ প্রয়োগ করেন সেদিকে সজাগ দৃষ্টি রাখার আহ্বান জানান ।

বিশেষ অতিথি এনটিভির সিইও সাবরিনা হোসেন মাতৃভাষা বাংলাকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য মিডিয়াগুলোকে এগিয়ে আসার জন্য অনুরোধ করেন। মুক্তিযোদ্ধা ও বাংলাদেশের সাবেক সাংসদ সুবিদ আলী টিপু তাঁর বিশেষ অতিথির বক্তব্যে  অভিভাবকদের সচেতন হওয়ার পাশাপাশি  বাংলাদেশ সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। বাংলাদেশ দুতাবাসের মাধ্যমে ব্রিটেনে তিনি বাংলাভাষা শিক্ষা ও প্রসারে বিভিন্ন কার্যক্রম শুরুর অনুরোধ করেন।

 প্রধান অতিথি  রুশনারা আলী এম পি, বাংলাভাষা চর্চা স্তিমিত না হয়ে বরং এর প্রসারের আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তবে তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের ক্রমাগত বাজেট কর্তনের কথা উল্লেখ করে বলেন এর ফলে টাওয়ার হ্যামলেটসেও বিভিন্ন কার্যক্রমে ব্যাঘাত ঘটতে পারে।
থমাস বাক্সটন স্কুলের গভর্নিং বোর্ডের চেয়ারম্যান সাজ্জাদ মিয়ার বক্তব্যের মাধ্যমে সেমিনারের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।
 ছবিঃ শাহিন খান ও রেজাউল করিম মৃধা।

Related posts