November 17, 2019

চাঁদপুর হাজীগঞ্জে কিশোরী অন্তসত্তায় ইউপি সদস্যসহ আটক-৩

chandpur---1

এ কে আজাদ, চাঁদপুর : চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে এক কিশোরী (১৭) অন্তসত্ত¡ার অভিযোগে ইউপি সদস্যসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাতে উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলো- উপজেলার গর্ন্ধব্যপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য অহিদুল ইসলাম (৬০) এবং একই ওয়ার্ডের ডাটরা-শিবপুর গ্রামের গাজী বাড়ীর ওরফে চকিদার বাড়ির রফিকুল ইসলামের ছেলে এমরান হোসেন (১৯) ও একই বাড়ির সিরাজুল ইসলামের ছেলে আরেফিন ওরফে আমিনুল (২০)। এছাড়াও রাব্বি (১৮) ও মেরাজ (২০) নামে দুআসামি পলাতক রয়েছেন।

জানা গেছে, চার যুবকের ধর্ষণে ৮ মাসের অন্তসত্ত¡া হয়ে পড়ে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী ওই কিশোরী। এ ঘটনা জানাজানি হলে ইউপি সদস্য অহিদুল ইসলাম ও সালিশদার মোস্তফা কামাল বিকম ঘটনার ধামাচাপা দিতে চার ধর্ষকের মধ্যে যুবতির পছন্দ অনুযায়ী এক ধর্ষকের সাথে বিয়ে ঠিক করেন। যদিও এর আগে চার ধর্ষকের কাছ থেকে ৫ লাখ ২০ হাজার টাকা আদায় করে কিশোরীর ব্যাংক একাউন্টে রাখেন ইউপি সদস্য অহিদুল ইসলাম ও সালিশদার মোস্তফা কামাল। সে অনুযায়ী গতকাল শনিবার যুবতির পছন্দের পাত্র ধর্ষক রাব্বির সাথে বিয়ে হওয়ার কথা ছিলো।

কিন্তু ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর কিশোরীর পাশে এগিয়ে আসেন পুলিশ। অবশেষে শুক্রবার রাতে কিশোরী বাদি হয়ে চার ধর্ষক ও ইউপি সদস্য অহিদুল ইসলাম, সালিশদার মোস্তফা কামাল বি কমসহ ৬ জনকে আসামি করে হাজীগঞ্জ থানা একটি মামলা দায়ের করেন। ওই রাতেই পুলিশ ইউপি সদস্য অহিদুল ইসলাম ও ধর্ষক এমরান হোসেন ও আরফিন আমিনুলকে গ্রেপ্তার করেন।

হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন রনি জানান, মামলার ৬ আসামির মধ্যে ৩ জনকে আটক করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। আর অন্যদেরও আটকের চেষ্টা চলছে।

Related posts